,

লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের শোকসভা শাহাব উদ্দিন বেলালের নামে স্থাপনার দাবি

 

লন্ডন, ১৪ ফেব্রুয়ারি : সদ্য প্রয়াত সাংবাদিক ও সাবেক কাউন্সিলার শাহাব উদ্দিন বেলালের নামে টাওয়ার হ্যামলেটসে যেকোন একটি স্থাপনার নামকরনের দাবী জানিয়েছে লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে পূর্ব লন্ডনের শাহ কমিউনিটি হলে প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে আয়োজিত এক শোক সভায় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি নবাব উদ্দিন এমন একটি প্রস্তাব উত্থাপন করলে সকলেই তা সমর্থন করেন। এসময় অনুষ্ঠানে টাওয়ার হ্যামলেটসের নির্বাহী মেয়র জন বিগসও উপস্থিত ছিলেন। সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ জুবায়েরের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন টাওয়ার হ্যামলেটসের নির্বাহী মেয়র জন বিগস, চ্যানেল এস চেয়ারম্যান আহমেদুস সামাদ চৌধুরী, প্রবীণ সাংবাদিক, সত্যবাণীর উপদেষ্টা সম্পাদক আবু মুসা হাসান, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট সাংবাদিক মোহাম্মদ আব্দুস সাত্তার, সাংবাদিক নজরুল ইসলাম বাসন, টাওয়ার হ্যামলেটসের সাবেক প্রিন্সিপাল মিডিয়া অফিসার সৈয?দ বেলাল আহমেদ, পত্রিকা সম্পাদক ইমদাদুল হক চৌধুরী, প্রবীন সাংবাদিক ইসহাক কাজল, সাপ্তাহিক সুরমা সম্পাদক কবি আহমদ ময়েজ,সাংবাদিক হামিদ মোহাম্মদ, প্রেস ক্লাবের সহসভাপতি মাহবুব রহমান,

সত্যবাণীর প্রধান সম্পাদক সৈয়দ আনাস পাশা, সাপ্তাহিক দেশ সম্পাদক তাইছির মাহমুদ, টাওয়ার হ্যামলেটসের সাবেক ডেপুটি লীডার রাজন উদ্দিন জালাল, সাবেক মেয়র গোলাম মর্তুজা, সাবেক মেয়র সয়ফুল উদ্দিন, বিসিএ’র সাবেক সভাপতি পাশা খোন্দকার, এটিএন বাংলার মোশতাক বাবুল, চ্যানেল এস’র হেড অব প্রোগ্রামাস ফারহান খান, ব্রিটবাংলা সম্পাদক কামাল মেহদী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাহতাব চৌধুরী, জনমতের নির্বাহী সম্পাদক সাঈম চৌধুরী ও সাংবাদিক আবু সুফিয়ান, প্রথম আলোর ইউকে প্রতিনিধি তবারকুল ইসলাম পারভেজ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দের মধ্যে সার্বিক সহযোগিতা করেন সহ-সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ সোবহান ,কমিনিকেশন সেক্রেটারী মোহাম্মদ আব্দুল কাইয়ুম ,আইটি সেক্রেটারী সালেহ আহমদ, ইভেন্ট সেক্রেটারী তৌহিদ আহমদ, নির্বাহী সদস্য পলি রহমান। বক্তারা সদ্য প্রয়াত শাহাব উদ্দিন বেলালকে একজন মনখোলা মানুষ আখ্যায়িত করে বলেন, বন্ধু ও সহকর্মী মহলে দলমত নির্বিশেষে সকলের সাথে ছিলো তাঁর প্রাণের সম্পর্ক। বর্ণবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী আন্দোলনের সামনের কাতারের সৈনিক ছিলেন বেলাল, এমন মন্তব্য করে বক্তারা বলেন, ‘সবার উপরে মানুষ সত্য, তাহার উপরে নাই’-হৃদয়ে এমন চেতনাই ধারণ করতেন তিনি। টাওয়ার হ্যামলেটসের মানুষের সাথে ছিলো শাহাব উদ্দিন বেলালের আত্মার সম্পর্ক, এমন মন্তব্য করে বক্তারা বলেন, কাউন্সিলার থাকাকালীন স্থানীয়দের হাউজিং সমস্যা সমাধানে আইনের উর্ধ্বে উঠে হলেও সহযোগিতার চেষ্টা করতেন তিনি। লন্ডনের বাংলা মিডিয়ার প্রতি টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের সহযোগিতা আদায়ে কাউন্সিলার শাহাব উদ্দিন বেলালের সহযোগিতার হাত ছিলো সব সময় প্রসারিত, এমন স্মৃতিচারণ করে তাঁর সাংবাদিক সহকর্মীরা বলেন, ব্রিটেনের বাংলা মিডিয়ার সাম্প্রতিক সময় নিয়ে যদি কোন পূর্ণাঙ্গ ইতিহাস রচিত হয়, তাহলে সেই ইতিহাসে শাহাব উদ্দিন বেলাল নিঃসন্দেহে তাঁর আপন সত্বা নিয়ে হাজির হবেন। তাঁর স্মরণে রাখা শোক বইয়ে নিজেদের আবেগ অনুভূতি প্রকাশ করে স্বাক্ষর করেন অনুষ্ঠানে আগত প্রয়াত শাহাব উদ্দিন বেলালের সহকর্মী, সুহৃদ স্বজনরা। অনুষ্ঠান শেষে শোক বইটি প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হয় প্রয়াত সাংবাদিক বেলালের ছেলের হাতে। অনুষ্ঠানে শাহাব উদ্দিন বেলাল স্মরণে একটি শোক বইয়ে সকলে শোকবার্তা জানান। শোক বইটি আনুষ্ঠানিকভাবে লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ মরহুমের ছোট ছেলে মোহাম্মদ খয়ের এর হস্তান্তর করেন ।

Share Button


     এ বিভাগের আরো খবর পড়ুন

বিজ্ঞাপন দিন